সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেলো বাংলাদেশ

জুবায়ের সাজিদ
বাংলাদেশের দেওয়া ২৫৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ২২৪ রানেই অলআউট শ্রীলঙ্কা। ৩৩ রানে ম্যাচ জিতলো বাংলাদেশ। টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ২য় ওভারেই শূন্য রানে সাজঘরে ফিরে যায় লিটন দাস। একপ্রান্ত আগলে রেখে খেলতে থাকেন তামিম।নিজের ৫১ তম ওয়ানডে ফিফটি তুলে আউট হন তিনি।৯৯ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ। মুশফিকের ৮৪ ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ফিফটিতে বড় সংগ্রহের দিকে যায় বাংলাদেশ। শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেটে ২৫৭ রান করে টাইগাররা।

সিনিয়র ক্রিকেটার ছাড়াও শক্তিশালী ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে ব্যাট করতে নামে শ্রীলঙ্কা দল।দারুণ বোলিংয়ে তাদের চাপে ফেলে দেন মেহেদী মিরাজ। ১০২ রানেই ৬ উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা দল। ওয়ানিন্ডো হাসারাঙ্গা ভীতি ধরিয়ে দেয় টাইগার শিবিরে। ব্যাক টু ব্যাক সাইফউদ্দিন ও মোস্তাফিজের শিকারে জয়ের দ্বারপ্রান্তে যায় বাংলাদেশ। মিরাজের ৪ উইকেট ও ফিজের ৩ উইকেটে জয় নিশ্চিত হয় বাংলাদেশের।

এ নিয়ে আইসিসির সুপার লীগে ৭ ম্যাচে ৪ জয়ে ৪০ পয়েন্ট অর্জন করলো বাংলাদেশ। তামিম ১৪ হাজার আন্তর্জাতিক রান ও সাকিব ১০০০ আন্তর্জাতিক উইকেটের রেকর্ড গড়লো। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ওপেনার হিসেবে রানের দিক দিয়ে ১০ নাম্বারে আছে তামিম। দশজনের ৮ জনই অবসরপ্রাপ্ত। বর্তমান ওপেনারদের মধ্যে শুধু ডেভিড ওয়ার্নার তামিমের আগে আছে। ১৯২৯৮ রান নিয়ে এক নাম্বারে সনাথ জয়াসুরিয়া।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ডঃ
বাংলাদেশ দলঃ
তামিম(৫২),মুশফিক(৮৪),মাহমুদুল্লাহ(৫৪)
ধনঞ্জয়া ডি সিলভাঃ১০ ওভারে ৪৫ রানে ৩ উইকেট

শ্রীলঙ্কা দলঃ
কুশল পেরেরা(৩০),হাসারাঙ্গা(৭৪)
মিরাজঃ১০ ওভারে ৩০ রানে ৪ উইকেট
মোস্তাফিজঃ৯ ওভারে ৩৪ রানে ৩ উইকেট
প্লেয়ার অফ দ্যা ম্যাচঃ মুশফিকুর রহিম

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles