যেমন যাচ্ছে অজিদের এবারের আইপিএল!

আসিফ আবদুল্লাহ

গতবারের আইপিএল সম্ভবত ভুলে যেতে চাইবেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। পাঞ্জাবের হয়ে পুরো আইপিএলে কোন ছয়ের মার ছিল না ম্যাক্সওয়েলের। এ পর্যন্ত খেলা সবগুলো আইপিএলের মধ্যে সবচেয়ে কম রান করেছেন গত আসরেই। ১১ ইনিংসে মাত্র ১০৮ রান করতে পেরেছিলেন তিনি। তাঁর এই অফ ফর্মের কারনে পাঞ্জাব ও ধরে রাখেনি নিলামের আগে। নিলামে উঠে যাওয়ায় ম্যাক্সওয়েলকে টার্গেট করে কয়েকটি দল। সেখান থেকে ব্যাঙ্গালোর কিনে নেয় ম্যাক্সওয়েলকে। এখন পর্যন্ত ৩ ম্যাচে ভালভাবেই অবদান রেখেছেন ম্যাক্সি। ৩ ম্যাচে তার ব্যাট থেকে এসেছে ১৭৬ রান। মুম্বাইয়ের সাথে ২৮ বলে ৩৯ রানের পর সানরাইজার্সের সাথে করেন ৪১ বলে ৫৯ রান। গতকাল কলকাতার সাথে খেলেন এ আসরের এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান। ৪৯ বলে ৭৮ রান করে বড় স্কোর গড়ার রাস্তা দেখিয়ে দেন তিনি। তাই এখন পর্যন্ত এই আইপিএলে সফল বলা যাচ্ছে ম্যাক্সিওয়েলকে।

বেশ কিছু বছর ধরেই ডেভিড ওয়ার্নার খেলছেন সানরাইজার্সে। এক বছর ক্রিকেটে নিষিদ্ধ থাকায় একটি মৌসুম খেলতে পারেননি তিনি। বরাবরই আইপিএলে সফল ওয়ার্নার। অধিনায়ক হিসেবে শিরোপা ও জিতিয়েছেন দলকে। শুধু অধিনায়কত্ব দিয়েই মন কাড়েননি তিনি। ভালোভাবেই নিয়মিত রান করে দলে অবদান রাখেন তিনি। কিন্তু এবারের মৌসুমে এখন পর্যন্ত আলো ছড়াতে পারেননি ওয়ার্নার। দল ও হেরেছে এখন পর্যন্ত খেলা সবগুলো ম্যাচ। পয়েন্ট টেবিলের তলানি থেকে দলকে টেনে তোলাই এবারের আসরের চ্যালেঞ্জ হতে যাচ্ছে ওয়ার্নারের জন্য।

সদ্য শেষ হওয়া বিগ ব্যাশ লীগ দিয়েই অজি দলে সুযোগ পেয়েছেন ড্যানিয়েল স্যামস। যথারীতি আইপিএল নিলামেও দল পেয়েছেন তিনি। ব্যাঙ্গালোর কিনে নেয় স্যামসকে। কিন্তু ৭ এপ্রিল কোভিড পজেটিভ হয়ে সময়টা ভালো কাটছিল না ভারতে। দল থেকে আলাদা থাকছেন তিনি। সম্প্রতি টেস্টে নেগেটিভ হয়েছেন স্যামস। সব ধরণের নিয়ম মেনে যোগ দেবেন দলের সাথে। সপ্তাহ দুইয়েক আইসোলেশনে থাকায় দলের সাথে মানিয়ে নিতে একটু সময় লাগতে পারে তার।

একটি ম্যাচই খেলেছেন ক্রিস লিন। আইপিএলে সুযোগ পাওয়ার পর থেকে কোন মৌসুমেই নিয়মিত খেলতে পারেননি লিন। এবারের আসরের প্রথম ম্যাচে মুম্বাই দলে সুযোগ পেয়ে ৩৫ বলে করেছিলেন ৪৯ রান। তবুও দলে নিয়মিত হতে পারেননি তিনি। ডি ককের কাছে জায়গা হারিয়েছেন তিনি। শেষ ১১ ম্যাচের ৮ ম্যাচেই ৪০ রানের গন্ডি পার হয়েছেন লিন। রান পেয়েও সময়টা কঠিন কাটতে যাচ্ছে লিনের।

স্বাভাবিক ভাবেই ক্যাপিটালসের একাদশে সুযোগ মেলেনি স্টিভেন স্মিথের। স্মিথকে তাই সুযোগের জন্য অপেক্ষা করতে হচ্ছে। এ আসর শেষ হওয়ার আগে সুযোগ মেলে কিনা সেটাই এখন দেখার বিষয়।

শেষ ১০ আইপিএল ম্যাচে মাত্র ৩ উইকেট শিকার করেছেন প্যাট কামিন্স। এবারের আসর শুরু করেছেন ভালো ভাবেই। ইতিমধ্যেই শিকার করেছেন ৪ উইকেট। তাছাড়া আইপিএলে সুযোগ পাওয়া যাই রিচার্ডসন ও মেরেডিথের সময়টা ভালো যাচ্ছে না। যদিও শেষ দিকে রিচার্ডসনের স্লোয়ার ডেলিভারিতেই জেতে দল। কিন্তু দুজন মিলে ৮ ওভারে দিয়েছেন ১০৪ রান। চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে ১০৭ রানের পুজি নিয়ে তেমন কিছুই করার ছিল না। দুজন মিলে এখন পর্যন্ত ২১ ওভার বল করে খরচ করেছেন ২২২ রান।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles